মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

খাদ্য উৎপাদন

চারিগ্রাম ইউনিয়নে খাদ্য উৎপাদনঃ-

চারিগ্রাম ইউনিয়ন কৃষি প্রধান ইউনিয়ন। এই ইউনিয়ন বাসীদের আয়ের প্রধান উৎস কৃষি। কৃষি উৎপাদন বৃদ্ধির ক্ষেত্রে সীমিত জমি থেকে উন্নত প্রযুক্তি, ও উপকরণ এর সর্বোত্তম ব্যবহার করে একই জমিতে নিবিড় পরিচর্যার মাধ্যমে অধিক ফসল ফলানো হয়।দেশে মূল্যবান কৃষি জমি কমছে।কৃষি জমি ক্রমান্বয়ে কমে যাওয়ার প্রবণতা রোধ করার পাশাপাশি লাগসই প্রযুক্তির উদ্ভাবন ও প্রয়োগের মাধ্যমে প্রতিটি পর্যায়ে প্রযুক্তি ব্যবহার বৃদ্ধি করতে হবে। খাদ্য শস্য উৎপাদনে লাগসই প্রযুক্তি ব্যবহার করলে কৃষক সমাজ উপকৃত হবেন, দারিদ্র মুক্ত হবেন। সবার জন্য খাদ্য নিশ্চিত হবেএবং জাতীয় উন্নতিতে অবদান রাখবে। কাজেই ক্ষুধা ও দারিদ্রমুক্ত দেশগড়ায় খ্দ্য শস্য উৎপাদন বৃদ্ধিও বিকল্প নেই।
নি¤েœ চারিগ্রাম ইউনিয়নের খাদ্য শস্য উৎপাদন এবং খাদ্য চাহিদার একটি তথ্য দেওয়া হলো। যথাঃ-
চারিগ্রাম ইউনিয়নে ১৩০ হেক্টও আবাদী জমির মধ্যে                             
বোরো ধানের আবাদ ৭৫০ হেক্টর, উৎপাদন ২৯৭ মেট্রিক টন চাউল                আঊশ ধানের আবাদ   ১০ হেক্টর, উৎপাদন ২০ মেট্রিক টন চাউল                                                                        বোনা আমন ধানের আবাদ   ৪৭৫ হেক্টর, উৎপাদন ৩১৩ মেট্রিক টন চাউল           রোপা আমন ধানের আবাদ   ১৬৫ হেক্টর, উৎপাদন ৪৯৫ মেট্রিক টন চাউল                গম আবাদ ৩১ হেক্টর, উৎপাদন ৯৩ মেট্রিক                                     তিন মৌসুমে ভ্ট্রূা আবাদ ২১৫ উৎপাদন ১০৭৫ মেট্রিক টন
মোট খাদ্য  শস্য উৎপাদন ৪৯০৩ মেট্রিক টন                            
চারিগ্রাম ইউনিয়নে লোকসংখ্যা     ৩০৫১৯ জন                              
বাৎসরিক খাদ্য চাহিদা ৫০৪৬ মেট্রিক টন                             বাৎসরিক উৎপাদন    ৪৯০৩ মেট্রিকটন                                  বাৎসরিক খাদ্য ঘাটতি ১৪৩ মেট্রিক টন                    
চারিগ্রাম ইউনিয়নের আবাদী জমির চারের এক অংশে আলু চাষ করা হয়। যাহা ঢাকাসহ পার্শ্ববর্তী জেলা গুলোতে কাচা অবস্থায় বিক্রি কওে প্রচুর অর্থআয় হয়। ফসলের আধুনিক জাত ব্যবহার, সুষম সার প্রয়োগএবং আধুনিক প্রযুক্তি প্রয়োগ এর মাধ্যমে খাদ্য উৎপাদন বৃদ্ধি করে খাদ্য ঘাটতি কমানো যেতে পারে।